বৃহস্পতিবার ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

হস্ত ও কুটির শিল্পকে বিশ্ব বাজারে পৌছে দেয়া হবে – বানিজ্য প্রতিমন্ত্রী

মোঃ মাসউদুর রহমান   |   সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | প্রিন্ট  

হস্ত ও কুটির শিল্পকে বিশ্ব বাজারে পৌছে দেয়া হবে – বানিজ্য প্রতিমন্ত্রী

বানিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হস্ত শিল্পকে বর্ষ পণ্য হিসেবে ঘোষণা করেছেন। সেই ঘোষণার আলোকে আমরা একটি গ্রাম একটি পণ্য এই শ্লোগানে সারা বাংলাদেশে তৃনমূল পর্যায়ে যে সকল কারিগর রযেছে তাদেরকে মেলার মাধ্যমে একত্র করে তাদের তৈরি হস্ত ও কুটির শিল্পকে আগামী ঢাকা আন্তর্জাতিক বানিজ্য মেলায় স্টল করে দিয়ে উপস্থাপন করার সুযোগ করে দিব। আমাদের মূল লক্ষ্যই হলো হস্ত ও কুটির শিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে টাঙ্গাইলের নাগরপুর সরকারি কলেজ মাঠে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী ক্ষুদ্র কুটির শিল্প ও বৈশাখী মেলা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


প্রতি মন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, আগে মানুষ পেটের দায়ে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের কাজ করতো কিন্তু এটা যে একটা শিল্প এবং এর থেকে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব সে বিষয়টা মাথায় নিয়েই আমরা এই হস্ত ও কুটির শিল্পীদের ভবিষ্যতে প্রশিক্ষণের আওতায় নিয়ে আসব। আমরা বিশ্বাস করি তারা যথাযথ প্রশিক্ষণ পেলে তাদের উৎপাদিত পণ্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারবে। আর বর্তমান সরকার তাদের পাশে থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে রপ্তানি করতে সহযোগিতা করবে।

বানিজ্য প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সবচেয়ে বড় কথা হলো আমাদের কিছু হস্ত ও কুটির শিল্প রয়েছে যেমন বাঁশ ও বেত শিল্প, মৃৎশিল্প, নকশি কাথা, গ্রামের মা বোনদের হাতে তৈরি কাসুন্দি, আচার, মুড়ি, মরকি সহ বিভিন্ন শিল্প আজ হারিয়ে যেতে বসেছে। এই শিল্পগুলো যাতে বিলুপ্ত হয়ে না যায় সেজন্যই আজকের এই মেলার আয়োজন।

টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী বলেন, তাঁত শাড়ি নিয়ে আমাদের বড় পরিকল্পনা রয়েছে। তাঁত শাড়ির মূল কেন্দ্র হলো পাথরাইল। পাথরাইলকে আমরা পৌরসভা করতেছি। পৌরসভার মাধ্যমে আমরা এটাকে সারাদেশে একমাত্র পৌরসভা হবে একটা পণ্য ভিত্তিক পৌরসভা। এটাকে এগিয়ে আমাদের পরিকল্পনা আছে কারিগর ও শিল্পীদের বাঁচিয়ে রাখা এবং এটাকে বাজারজাত করার জন্য আমরা পাথরাইলে সেল সেন্টার করবো, হাট করার চিন্তা আছে সবার সাথে বসে যেভাবে তাঁত শাড়িকে প্রচার ও প্রসার করা যায় সেটার আমরা ব্যবস্থা করবো।

নাগরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রেজা মো. গোলাম মাসুম প্রধানের সভাপতিত্বে  বক্তব্য রাখেন, নাগরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি জসিম উদ্দিন,  উপজেলা আওয়ামী লীগের (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি আনিসুর রহমান, পাকুটিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিক, সাবেক কমান্ডার সুজায়েত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সামিলাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিদুল  ইসলাম অপু প্রমুখ। পর দিন রোববার সকালে পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশ নেন বানিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু। শোভা যাত্রাটি উপজেলা ক্যামপাস থেকে শুরু হয়ে নাগরপুর সরকারি কলেজের মেলা প্রাঙ্গণে শেষ হয়।

Facebook Comments Box

Posted ৭:৩০ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

Desh24.news |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
এম আজাদ হোসেন সম্পাদক ও প্রকাশক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

শ্রীসদাস লেন,বাংলাবাজার , ঢাকা-১১০০/ ঘিওর, মানিকগঞ্জ।

হেল্প লাইনঃ +৮৮০১৯১১৪৭৭১৪১/০১৯১১২২৭৯০৭

E-mail: infodesh24@gmail.com