বুধবার ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

দৌলতপুরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিহত পুলিশ সদস্য আমিরুল ইসলামের দাফন সম্পন্ন

রামপ্রসাদ সরকার দীপু স্টাফ রিপোর্টার   |   সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩ | প্রিন্ট  

দৌলতপুরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিহত পুলিশ সদস্য আমিরুল ইসলামের দাফন সম্পন্ন

রাজধানীতে সরকারি দায়িত্ব পালন কালে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত পুলিশ কনস্টবল আমিরুল ইসলাম পারভেজ (৩২) এর রাষ্ট্রীয় মর্য়াদায় লাশ দাফন করা হয়েছে। নিহত পুলিশ সদস্যেও আমিরুল ইসলাম পারভেজ (৩৩)। সে ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটে কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন। নিহত পুলিশ সদস্য পারভেজের দৌলতপুরে গ্রামের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম ।
আজ রবিবার বিকেল ৫টায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষে বাদ মাগরিব দৌলতপুর সরকারি হাই স্কুল মাঠে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। দৌলতপুর কেন্দ্রীয় কবরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষে তার লাশ দাফন সম্পন্ন করা হয়। আওয়ামীলীগ সহ সর্বস্তরের লোকজন কফিনে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। পুলিশ সদস্য আমিরুল ইসলাম পারভেজ মুক্তিযোদ্ধা সেকান্দার আলী মোল্লার বড় ছেলে। তার গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার চরকাটারী ইউনিয়নের বোটঘর গ্রামে। মৃত্যু কালে বাবা, মা, ভাই বোন স্ত্রী এক মেয়েসহ বহু আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন। ২০১১ সালে ১৫ আগষ্ট পুলিশ বিভাগে কনস্টেবল পদে যোগ দেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য এ এম নাঈমুর রহমান দুর্জয়, জেলা প্রশাসক রেহানা আক্তার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট গোলাম মহীউদ্দীন, জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ গোলাম আজাদ খান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নূরুল ইসলাম রাজা প্রমুখ।, পুলিশ সদস্য আমিরুল ইসলাম পারভেজের লাশ তার গ্রামের বাড়িতে আনার পরে পরিবারে পরে যায় কান্নার রোল। লাশ এক নজর আশেপাশের হাজার হাজার লোকজন ও আত্নীয় স্বজন ভীড় করেন বাড়িতে। এ সময় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারন হয়।
নিহত পুলিশ সদস্যের ভাগ্নে মোঃ সবুজ মুঠোফোনে বলেন, পুলিশ কনস্টেবল পারভেজ ও তার পরিবারের আদি বাড়ি মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলায় ছিল। তবে বর্তমানে তাঁর পরিবার টাঙ্গাইলের নাগরপুর থানার ফয়েজপুর গ্রামে বসবাস করছেন। স্থানীয় বাসিন্দা ও নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, বছর খানেক আগে যমুনা নদীর ভাঙনের শিকার হয়ে পারভেজের পরিবার পার্শ্ববর্তী টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলার ৮ নং দপ্তিয়ন ইউনিয়নের ফয়েজপুর গ্রামে বসতি গড়েন। ওই গ্রামবাসীর বরাত দিয়ে তিনি আরো বলেন, তিনি খুব মিশুক ও ভাল স্বভাবের লোক ছিলেন।

Facebook Comments Box


Posted ১:২৫ অপরাহ্ণ | সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩

Desh24.news |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯  
এম আজাদ হোসেন প্রকাশক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

শ্রীসদাস লেন,বাংলাবাজার , ঢাকা-১১০০/ ঘিওর, মানিকগঞ্জ।

হেল্প লাইনঃ +৮৮০১৯১১৪৭৭১৪১/০১৯১১২২৭৯০৭

E-mail: infodesh24@gmail.com